মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভবিষৎ পরিকল্পনা

 

       প্রার্থী বাছাই-এ নিম্নক্তো বিষয় বিবেচনা করাঃ

ক)    আগ্রহ।

খ)    মানষিকতা।

গ)    সামাজিক অবস্থা।

ঘ)    বেকারত্ব ।

ঙ)    পরিবেশ ও পারিপাশ্বিকতা।

চ)    দৃষ্টিভঙ্গী । 

ছ)    আচার আচারণ।

জ)    প্রয়োজনীয়তা।

ঝ)    অভিভাবকের মতামত।

 

       আনুসঙ্গিক ব্যবস্থা (লজিষ্টিক সার্পোট)

  • ভাতার ব্যবস্থা করা।
  • ব্যবহারিক শিক্ষার সুযোগ বৃদ্ধি করা।
  • আবাসন ব্যবস্থার সুযোগ বাড়ানো। 
  • বিনোদনের ব্যবস্থা রাখা।
  • তাত্ত্বিক ক্লাসে আধুনিক যন্ত্রপাতির ব্যবহার বাড়ানো।
  • বিতর্ক প্রতিযোগীতার আয়োজন করা।
  • উপস্থিত  বক্তৃতার মাধ্যমে প্রতিযোগীতা মূলক মনোভাব তৈরী করা।
  • শিক্ষা সফর
  • প্রকল্প পরিদর্শন।
  • ফলাফল ও প্রতিযোগীতা ভিত্তিক পুরস্কারের ব্যবস্থা করা। 
  • এসাইরমেন্ট পদ্ধতি চালু করা।
  • প্রশিক্ষার্থীদের স্বল্প সময়ে ও সহজ শর্তে  ঋণ প্রদানের ব্যবস্থা।
  • মাঠ কর্মকর্তা কর্তৃক নীবিড় তদারকী।
  • কেন্দ্র ভিত্তিক মোবাইল যোগাযোগ রক্ষা করা।
  • বিষয় ভিত্তিক ক্লাসের পাশপাশি সামাজিক সকল আলোচনার ব্যবস্থা রাখা।
  • উপজেলা পর্যায়ে কোটা ভিত্তিক প্রার্থী প্রেরণ বাধ্যতা মূলক করা।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter